রাজশাহীতে যুবদল কর্মীকে গুলি করার অভিযোগ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে

বিডি নিউজ২৩: রাজশাহী মহানগরীতে গাড়ি রাখাকে কেন্দ্র করে আরিফুল ইসলাম জন (৪৩) নামের এক যুবদল কর্মীকে গুলি করার অভিযোগ উঠেছে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা বিরুদ্ধে।

 

মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) রাতে নগরীর রাজারহাতা এলাকায় অবস্থিত সিটি কলেজের সামনে এ ঘটনা ঘটে। পরে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় জনকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে জনকে গুলি করা হয়। এ সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করেন। আহত জন রাজশাহী মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আসলাম সরকারের ভাতিজা।

 

আহতের স্বজনদের দাবি, হামলাকারী রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান রাজিব। তিনি আরিফুলের পায়ে গুলি করেছে বলে অভিযোগ করেন তারা।

এলাকাবাসী জানিয়েছে, আরিফুল রাতে প্রাইভেট কার নিয়ে বের হয়ে কলেজ মোড়ে রাখেন। সেখানে আগে থেকে আড্ডা দেওয়া ছাত্রলীগ নেতা রাজিব গাড়ি রাখতে নিষেধ করে। এ নিয়ে উভয়ের কথা কাটাকাটি শুরু হলে মারপিট হয়। এর এক পর্যায়ে গুলির ঘটনা ঘটে।

 

এই ঘটনায় অভিযুক্ত রাজিব নিজেকে নির্দোষ দাবী করে তিনি বলেন, ওরাই মাদক ব্যবসায় নিয়ে সমস্যা হওয়ার কারণে নিজেরাই গোলাগুলি করার ঘটনা ঘটিয়েছে। এখন আমার উপর দোষ চাপানোর চেষ্টা করছে। নতুন করে রাজনীতির রং লাগানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। আমার সাথে তাদের কোন গোলাগুলির ঘটনা ঘটেনি।

 

এ ব্যপারে বুধবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল ডা. শামীম ইয়াজদানী জানান, গুলিবিদ্ধ রোগী অপারেশন সম্পন্ন হয়েছে। বর্তমানে তিনি শঙ্কামুক্ত।

 

মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বলেন, গাড়ি রাখাকে কেন্দ্র করে জন ও রাজিবের মধ্যে মারামারি হয়েছে শুনেছি। অভিযোগ পেলে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। (সূত্রঃ প্রথম আলো)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *