রাজশাহীতে ভোক্তা অধিকার ২টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করলেন ৫০ হাজার

বিডি নিউজ২৩: ভুয়া ও মানহীন পণ্য বিক্রয় এবং প্রতারণার অভিযোগে দুটি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছেন, জাতীয় ভোক্তা-অ‌ধিকার সংরক্ষণ অ‌ধিদপ্তর রাজশাহী জেলা কার্যালয়।

 

সোমবার (২১ নভেম্বর) অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযোগকারী ও অভিযুক্তের উপস্থিতিতে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। শুনানিতে অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানের অভিযোগ স্বীকার করায় অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানকে ৪০ হাজার ও অন্য আরেকটি প্রতিষ্ঠানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

 

জাতীয় ভোক্তা-অ‌ধিকার সংরক্ষণ অ‌ধিদপ্তর, রাজশাহী জেলা কার্যালয় থেকে জানা যায় যে, জনাব মোঃ রবিউল ইসলাম, পিতা: মোঃ আজহারুল ইসলাম, ১৩/ডি স্বচ্ছ টাওয়ার, শেখের চক, ঘোড়ামারা, বোয়ালিয়া, রাজশাহী অভিযোগ করেন যে গত ৬ নভেম্বর ২০২২ খ্রি. তারিখে শাহাদৎ স্টোর, ২৫৮/২৫৯নং আর.ডি. এ (খাঁচা) মার্কেট, রাজশাহী হতে হেড এন্ড শোল্ডারস অ্যান্টি ড্যানড্রাফ শ্যাম্পু, এবং গার্নিয়ার ফেসওয়াস দুইটি করে ৪টি মোট ১,৪৪০/ টাকায় ক্রয় করেন।

 

পরবর্তীতে বাসায় গিয়ে হেড এন্ড শোল্ডারস অ্যান্টি ড্যানড্রাফ শ্যাম্পু ব্যবহার করতে গিয়ে বুঝতে পারেন পণ্যটি যথাযথ নয় এবং ব্যবহার পরবর্তীতে শরীরে চুলকানি অনুভব করেন। পণ্যটির বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান বিদেশি বলে বিক্রয় করলেই পণ্যের লেবেলে আমদানিকারকের নাম, ঠিকানা, বিএসটিআই এর লোগো এবং দেশীয় মূল্যে উল্লেখ নাই। বিষয়টি প্রতারণা বুঝতে পেয়ে ৮ নভেম্বর ২০২২ খ্রি. তারিখে জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, রাজশাহী জেলা কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অদ্য ২১ নভেম্বর উক্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযোগকারী ও অভিযুক্তের উপস্থিতিতে শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত শুনানিতে অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানের স্বত্তাধিকারী জনাম মোঃ শাহাদৎ আলী অভিযোগ স্বীকার করায় অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানকে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর ৩৭ ধারায় ৪০,০০০/ (চল্লিশ হাজার) টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়। ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর ৭৬ (৪) অনুসারে অভিযোগকারীকে আদায়কৃত জরিমানার ২৫% ১০,০০০/-(দশ হাজার)টাকা প্রদান করা হয়

 

২। জনাব ফয়জুল হক, সমিতির হাট, পূর্ব এনায়েত নগর, কালকিনি, মাদারিপুর অভিযোগ করেন যে গত ১৫ এপ্রিল ২০২২ খ্রি. তারিখে জনাব রুহুল আমিন প্রোপাইটার রাজশাহী এগ্রো ফেসবুক পেজ, রাজশাহী হতে কতকগুলো গাছের চার মোট ২৫,০০০/ টাকা দিয়ে ক্রয়ের অর্ডার করেন। পরবর্তীতে জনাব রুহুল আমিন ৪ মাস ধরে প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী সকল চারা সরবরাহ করেন না এবং কুরিয়ার চার্জ বাবদ অতিরিক্ত টাকা আদায় করেন। বিষয়টি প্রতারণা বুঝতে পেয়ে ২১ আগস্ট ২০২২ খ্রি. তারিখে জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, রাজশাহী জেলা কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

 

অদ্য ২১ নভেম্বর ২০২২খ্রি. তারিখে উক্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে ৪র্থ শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত শুনানিতে অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানের স্বত্তাধিকারী জনাব মোঃ রহুল আমিন অভিযোগ স্বীকার করায় অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানকে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর ৪৫ ধারায় ১০,০০০/(দশ হাজার) টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়। ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর ৭৬ (৪) অনুসারে অভিযোগকারীকে আদায়কৃত জরিমানার ২৫% ২,৫০০/-(দুই হাজার পাঁচশত) টাকা প্রদান করা হবে। অ‌ভি‌যোগ নিষ্প‌ত্তিকারী কর্মকর্তা জনাব মোঃ মাস‌ুম অালী , সহকারী প‌রিচালক, জাতীয় ভোক্তা-অ‌ধিকার সংরক্ষণ অ‌ধিদপ্তর, রাজশাহী জেলা কার্যালয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *