২০৭ বাংলাদেশি ইন্টারপোলের নজরদারিতে

বিডি নিউজ২৩: সম্প্রতি এক বাংলাদেশিকে হত্যার ঘটনায় তদন্ত করতে বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধি দল দক্ষিণ আফ্রিকায় গেলে ইন্টারপোল এ তালিকা দেয়।

 

জানা গেছে, দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রায় ৪ লাখ বাংলাদেশির বসবাস। দেশটিতে অপরাধের বেশিরভাগই ব্যবসায়িক বিরোধ, মুক্তিপণের দাবি, অপহরণ করে হত্যা, দোকানে চুরি-ডাকাতিতে বাধা দিতে গিয়ে ঘটে। বাংলাদেশের অনেকেই সেখানে ব্যবসা করেন। যার কারণে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের ঘটনা সেখানে প্রায়ই ঘটে। আর এসব অপরাধের সঙ্গে ভারতীয়, পাকিস্তানি, আফ্রিকান ছাড়াও বাংলাদেশিরা বড় একটি অপরাধ চক্র গড়ে তুলেছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় অপরাধ চক্রের সঙ্গে জড়িত এমন ২০৭ বাংলাদেশির তালিকা করেছে আন্তর্জাতিক পুলিশ সংস্থা ইন্টারপোল।

 

এসব ঘটনার মধ্যে সম্প্রতি মাদারীপুরের রেজাউল আমিন মোল্লা নামে প্রবাসীকে মুক্তিপণ না দেওয়ায় হত্যা এবং চাঁদপুরের রিয়াদ হোসেন নামে এক তরুণকে জিম্মির ঘটনার তদন্ত করতে দক্ষিণ আফ্রিকায় যায় বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধি দল। সেখানে প্রতিনিধি দলকে ২০৭ বাংলাদেশির তালিকা দেয় ইন্টারপোল। যারা আফ্রিকায় ছোট-বড় নানা ধরনের অপরাধের সঙ্গে যুক্ত।

 

এ বিষয়ে ডিবির ওয়ারী বিভাগের ডিসি আশরাফ হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, আফ্রিকায় বিভিন্ন অপরাধে যুক্ত এমন ২০৭ জনের তালিকা দিয়েছে ইন্টারপোল। এদেরমধ্যে কেউ মামলার আসামি। অনেকে আবার দেশে চলে এসেছে।

 

তিনি আরও বলেন, তালিকাভুক্ত সবার পূর্ণাঙ্গ তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে। প্রত্যেককে গোয়েন্দা নজরদারিতে রাখা হবে। তাদেরকে খুঁজে বের করতে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ।

 

উল্লেখ্য, ২০১৫ সাল থেকে এখন পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকায় ৫৫০ জনের বেশি বাংলাদেশি হত্যার শিকার হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *