রাজশাহীর পুঠিয়ায় চাঁদাবাজির মামলায় চেয়ারম্যানের ছেলে আটক

পুঠিয়া (রাজশাহী) উপজেলা সংবাদদাতাঃ

পুঠিয়ায় চাঁদাবাজির মামলায় সাকলায়েন অমি (২৫) নামের একজনকে আটক করেছে পুঠিয়া থানা পুলিশ। আটক সাকলায়েন চারঘাট উপজেলার শোলুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদের ছেলে। গতকাল 

 

মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) রাত্রিতে উপজেলার বানেশ্বর বাজারের ট্রাফিক মোড় এলাকা থেকে আটক করা হয়।

 

পুঠিয়া থানা সূত্রে জানাগেছে, গত বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় চারঘাট উপজেলার শোলুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কালমের ছেলেসহ ৭জন পুঠিয়া উপজেলা পরিষদের চত্বরে নির্মানাধীন মডেল মসজিদের ম্যানেরজার আনোয়ার হোসেনের কাছে ২০ হাজার টাকা চাঁদাদাবী করে। এসময় ম্যানেজার আনোয়ার হোসেন চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে প্রথমে তারা আনোয়ার হোসেনকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে এবং এক পর্যায়ে তাকে মারধোর শুরু করে। মারধরের এক পর্যায়ে তার আনোয়ারের মাথায় গুরুতর জখম হলে তিনি জ্ঞান হারিয়ে মডেল মসজিদের ছাদে লুটিয়ে পড়েন। সেখানে তারা তাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে সেখানে কর্মরত লেবার মিস্ত্রীরা তাকে উদ্ধার করে পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এসখানে তার অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে রামেক হাসপাতালে. পাঠান।

 

রামেক হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে গত শনিবার (২২ অক্টোবর) আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে পুঠিয়া থানায় ৭ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় পুঠিয়া থানা পুলিশ আসামী অমিকে আটক করে।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করে পুঠিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, আটক আসামী বুধবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে বলে এ কর্মকর্তা জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *