• রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৪৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম
বাঘায় সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন, বিএমএসএস’র নিন্দা প্রকাশ রাজশাহীর বাগমারা থেকে চাঁদাবাজ চক্রের মূলহোতা, গ্রেফতার করেছে ৱ্যাব-৫ আরএমপির পুলিশ কমিশনারসহ ৬ পুলিশ সদস্য পেলেন বিপিএম-পিপিএম পদক রাজশাহীর বাঘায় সাংবাদিককে হাত-পা বেঁধে নির্যাতন থানায় অভিযোগ প্রশাসনের উপর ক্ষোভ ঝাড়লো সাংবাদিকের উপর হত্যার হুমকি, থানায় অভিযোগ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীয় মেয়র হতে চলেছেন শায়লা পারভীন: তাহেরপুর পৌর নির্বাচন রুয়েটে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত পুঠিয়ায় সেভ লাইফ রক্তদান সংস্থার ৬ষ্ঠ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও মাতৃভাষা দিবস পালিত পুঠিয়ায় হাট পাহারাদারের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার এলাকাবাসীর মাঝে অন্য গুঞ্জন প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

দেওয়ানী আদালতের রায়/আদেশ মূলে কিভাবে রেকর্ড সংশোধন করবেন

সংবাদদাতা:
সংবাদ প্রকাশ: বুধবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২২
দেওয়ানী আদালতের রায়/আদেশ মূলে কিভাবে রেকর্ড সংশোধন করবেন
দেওয়ানী আদালতের রায়/আদেশ মূলে কিভাবে রেকর্ড সংশোধন করবেন

বিডি নিউজ২৩: উপজেলা ভূমি অফিসে আবেদনপ্রাপ্তির পর বিবিধ কেস নথি সৃজন করে প্রস্তাব/প্রতিবেদন দাখিলের জন্য সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন ভূমি অফিসে প্রেরণ করা হয়। প্রস্তাব/প্রতিবেদনপ্রাপ্তির পর তা যাচাই করে সরকারি স্বার্থ জড়িত না থাকলে সহকারী কমিশনার (ভূমি) কর্তৃক কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়।

 

সহকারী কমিশনার (ভূমি) প্রস্তাবপত্র ও দেওয়ানি আদালতের আদেশ মোতাবেক খতিয়ানের কপি প্রস্তুত করে উপজেলা ভূমি অফিসে প্রেরণের জন্য সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তাকে আদেশ দিবেন। ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা উক্ত আদেশ মোতাবেক প্রস্তাবপত্র ও ৫ (পাঁচ) কপি খতিয়ান প্রস্তুতপূর্বক উপজেলা ভূমি অফিসে প্রেরণ করবেন। সহকারী কমিশনার (ভূমি) আদেশ নামায় দেওয়ানি আদালতের রায়ের বিষয়টি উল্লেখ করে খতিয়ান সংশোধনের আদেশসহ প্রস্তুতকৃত খতিয়ানে স্বাক্ষর করবেন।

 

ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা রেজিস্টার-২ হালনাগাদ করে প্রতিবেদন দাখিল করার মাধ্যমে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়।

 

প্রয়োজনীয় ফি:

 

১। আবেদনের সঙ্গে কোর্ট ফি ২০ টাকা; ২। নোটিশ জারি ফি ৫০ টাকা; এবং নামজারি জমাভাগ জমা একত্রিতকরণ আবেদন মঞ্জুর হবার পর ১। রেকর্ড সংশোধন ফি- ১,০০০/- টাকা; ২। খতিয়ান ফি- ১০০/- টাকা

 

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

 

১। সর্বশেষ নামজারি ও জমাভাগ/জমা একত্রিতকরণের খতিয়ান (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে); ২। ওয়ারিশ সনদপত্র (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) (অনধিক ০৩ মাসেনর মধ্যে ইস্যুকৃত)।

 

৩। মূল দলিলের ফটোকপি/সার্টিফাইড কপি।

 

৪। সর্বশেষ জরিপের পর থেকে আবেদনকারীর আবেদন পর্যন্ত সময় পর্যন্ত হস্তান্তরের বায়া/পিট দলিল।

 

৫। হালনাগাদ ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধের দাখিলা: ৬। আদালতের রায়/আদেশ/ডিক্রি থাকলে আদেশের সার্টিফাইড কপি।

 

৭। আদালতের রায়/আদেশ/ডিক্রি থাকলে আরজির সার্টিফাইড কপি;

 

৮। জমির চৌহদ্দিসহ কলমি নক্সা।

 

৯। আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি; ১০। আবেদনের সঙ্গে আবেদনকারীর সদ্য তোলা এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি;

 

১১। আবেদনকারীর পক্ষে মনোনীত কোনো ব্যক্তি শুনানিতে থাকতে চাইলে ছবিসহ হলফনামার কপি।

সংবাদটি শেয়ার করুন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

Recent Comments

No comments to show.