স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন নিয়ে সংঘর্ষে নিহত এক ছাত্র, ওসিসহ আহত-২০

বিডি নিউজ২৩; রংপুরে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে সংঘর্ষে নিহত শিক্ষার্থীর মরদেহ নিয়ে স্বজনদের আহাজারি। রংপুরের পীরগঞ্জের খেতাবের পাড়া পিএম উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে দুই শিক্ষকের দ্বন্দ্বে প্রাণ গেল আকাশ নামের এক স্কুল ছাত্রের। সংঘর্ষের সময় পীরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ (ওসি) ২০ জন আহত হয়েছে। এতে শিক্ষকসহ ১১ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, আজ সোমবার সকালে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে প্রধান শিক্ষক নুরুন্নবী ও সহকারী শিক্ষক আনোয়ারুলের মধ্যে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হলে এলাকাবাসী বিদ্যালয়ের ভেতরে চলে আসেন। এ সময় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র আকাশ মারা যায়।

 

এ ঘটনায় আহত হন পীরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল আউয়ালসহ অন্তত ২০ জন। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

রংপুর ডি সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার কামরুজ্জামান এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘স্কুলটির ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। এরই জেরে আজ সোমবার সকালে বিদ্যালয়ের ভেতর শিক্ষকদের দুই গ্রুপে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। পরে এলাকাবাসী বিদ্যালয়ে এলে দ্বন্দ্ব সংঘর্ষে রূপ নেয়।’

 

সহকারী পুলিশ সুপার কামরুজ্জামান বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করলে তাঁদের ওপরও চড়াও হয় সংঘর্ষে লিপ্তরা। এ সময় আহত হন পুলিশ সদস্যরাও। এ ঘটনায় স্কুলটির সহকারি শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলামসহ ১১ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।’

 

তিনি বলেন, ‘সংঘর্ষে বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য থানায় নেওয়ার পর হাসপাতালে পাঠায়। এ ব্যাপারে পীরগঞ্জ থানায় দুটি মামলা হয়েছে। সুত্রঃ সময় টিভি 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *