নাটোরে ছেলের হাত থেকে বাঁচতে থানার দ্বারস্থ বৃদ্ধা মা

বিডি নিউজ২৩: সম্পত্তির লোভে বৃদ্ধ মাকে পেটানোর অভিযোগ! ছেলের হাত থেকে বাঁচতে থানার দ্বারস্থ বৃদ্ধা। নাটোর সদর উপজেলার ছাতনী ইউনিয়নের মাঝদিঘা পূর্বপাড়া গ্রামে সম্পত্তির লোভে অসুস্থ বৃদ্ধ মা সুফিয়া বেওয়া (৮০)কে পেটানোর অভিযোগ উঠল বড় ছেলে বেলাল হোসেন এবং তাঁর স্ত্রী হালিমা বেগমের বিরুদ্ধে। এখানেই শেষ নয় অভিযোগের। অসুস্থ মাকে মারপিটের প্রতিবাদ করায় সহোদর ছাট ভাই তসলিম উদ্দীনকেই হত্যার হুমকি দেওয়ার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এই অমানবিক ঘটনায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে মাঝদিঘা পূর্বপাড়া গ্রামে। সদর থানায় অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে।

 

ঘটনাটি ঘটেছে, সোমবার রাত সাড়ে ১০ টায়। অভিযুক্ত ছেলের শাস্তির দাবিতে মঙ্গলবার সদর থানা পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন বৃদ্ধা মা।

অভিযোগকারী বৃদ্ধার অভিযোগ, তাঁর চারটি সন্তান, তিন ছেলে এক মেয়ে । বড় ছেলে তাঁকে দেখাশোনা করে না, প্রায় দিন স¤পত্তি লিখিয়ে নেওয়ার জন্য মারধর করে। বছর দুয়েক আগে ছেলের অত্যাচারে অসুস্থ হয়ে বৃদ্ধ বাবা আবু তাহের মারা যায় । বৃদ্ধ মা তাঁর স¤পত্তি বড় ছেলেকে বসতবাড়ি নির্মানের জন্য দেন। তারপরও কিন্তু থামেনি অত্যাচার। 

 

এবার বৃদ্ধা মায়ের বাবার বাড়ি থেকে পাওয়া ২৫ শতাংশ স¤পত্তি হাতাতে বৃদ্ধা মাকে মারধর, অত্যাচার করছে ছেলে।বৃদ্ধা সূফিয়া বেগম জানান, গত ৩০ বছর যাবৎ তাদের দেখাশোনা, চিকিৎসা, ঔষুধপত্রসহ সকল ভরণপোষণ করে আসছে ছোট ছেলে তসলিম উদ্দীন ।মঙ্গলবার রাত ১০ টায় আমার ছোট ছেলের বাসা থেকে বড় ছেলে বেলাল হোসেন তাঁর বাসায় ডেকে নিয়ে যায় । সেখানে যাওয়ার পর বড় ছেলে এবং বউমা আমাকে একটি ঘরে আটকে রেখে জমি লিখে নেওয়ার চেষ্টা করে । আমি ষ্ট্যাম্প স্বাক্ষর দিতে না চাইলে আমাকে মারপিট ও গালিগালাজ করা শুরু করে ।পরে আমার ডাক চিৎকারে প্রতিবেশিরা আমাকে রক্ষা করে ।

 

অভিযুক্তর ছোট ভাই তসলিম উদ্দীন জানান ,‘দীর্ঘদিন ধরে আমার বড় ভাই এবং ভাবি অসুস্থ বাবা মার উপর চাপ দিচ্ছে স¤পত্তির লোভে। বাবা মারা যাওয়ার পর দীর্ঘদিন ধরে মায়ের উপর এই অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে। এদিন মাকে খুন করারও চেষ্টা করে ভাই। মা খুবিই অসুস্থ তাতেও অত্যাচার থামেনি।এই নিয়ে তিনবার মারধর করেছে মাকে৷’ তাঁর দাবি, মাকে যেন আর অত্যাচারিত হতে না হয় সে জন্য থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

 

বৃদ্ধ মা সুফিয়া বেগম কাঁদতে কাঁদতে বলেন, স¤পত্তির জন্য বড় ছেলে মারধর করছে । এর আগেও ও আমাদের মারধর করেছে। ছোট ছেলে প্রতিবাদ করলে তাকেও হত্যার হুমকি দিচ্ছে। পুলিশের দ্বারস্থ হয়ে ছেলের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন বৃদ্ধ মা ৷ পরিবারের সকলেই গুণধর ছেলের শাস্তির দাবি জানিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন।

 

অভিযুক্ত বেলাল হোসেন জানান,আমার মাকে কোন মারপিট করা হয়নি। তিনি মিথ্যা অভিযোগ করছেন ।

 

সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসিম আহম্মেদ জানান, অভিযোগের তদন্ত করে সত্যাতা পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related posts

Leave a Comment