আতঙ্ক বাড়াচ্ছে ‘টমেটো ফ্লু’ বিজ্ঞানীদের সতর্কতা

বিডি নিউজ২৩

বিডি নিউজ২৩: করোনাভাইরাস, মাঙ্কিপক্সের পর এবার নতুন আতঙ্ক হয়ে সামনে এসেছে ‘টমেটো ফ্লু’। ভারতে এই টমেটো ফ্লু রোগ ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে এরইমধ্যে সতর্ক করেছেন চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা।

 

এখন পর্যন্ত ভারতের কেরালা এবং ওড়িশা রাজ্যে টমোটো ফ্লু আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। চিকিৎসকরা বলছেন, এটি এমন একটি রোগ যা সাধারণত মানুষের হাত, পা এবং মুখে আক্রমণ করে। 

 

বিজ্ঞান সাময়িকী ল্যানসেট রেসপিরেটরি জার্নালের তথ্য অনুসারে, ভারতের কেরালা রাজ্যের কুল্লামে গত ৬ মে প্রথমবারের মতো টমেটো ফ্লু শনাক্ত হয় এবং এখন পর্যন্ত সেখানে ৮২ শিশু এই রোগে আক্রান্ত হয়েছে, যাদের সবার বয়সই পাঁচ বছরের নিচে।  

 

সংক্রামক এই রোগটি অন্ত্রের ভাইরাসের মাধ্যমে ছড়ায়। যদিও প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে রোগটি বিরল। কারণ ভাইরাস থেকে রক্ষার জন্য প্রাপ্তবয়স্কদের দেহে সাধারণত শক্তিশালী রোগপ্রতিরোধ ব্যবস্থা থাকে।  

 

এ রোগে আক্রান্ত হলে রোগীর শরীরে ব্যথা হয়, লাল ফোসকা দেখা দেয় এবং তা ধীরে ধীরে আকারে টমেটোর মতো বড় হয়ে যায়। মূলত এ কারণেই রোগটির নাম দেয়া হয়েছে টমেটো ফ্লু।  

 

চিকিৎসকরা বলছেন, টমেটো ফ্লু’র লক্ষণগুলোর মধ্যে জ্বর, শরীর ব্যথা, জয়েন্ট ফুলে যাওয়া এবং ক্লান্তি অনুভব করা অন্যতম, যা অনেকটা চিকুনগুনিয়ার মতো। এছাড়া টমেটো ফ্লুতে আক্রান্ত কিছু রোগী বমি বমি ভাব, বমি, ডায়রিয়া ও শরীরে পানি শূন্যতার কথাও জানিয়েছেন।  

 

ল্যানসেট জানিয়েছে, কুল্লাম ছাড়াও কেরালার আঁচল, আরিয়ানকাভু এবং নেদুভাথুর এলাকায় টমেটো ফ্লুর প্রকোপ দেখা দিয়েছে। কেরালার প্রতিবেশী রাজ্য তামিলনাড়ু এবং কর্ণাটকেও এই রোগের বিষয়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।  

 

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটি নিজ থেকেই কমে যাওয়া বা সেলফ লিমিটিং একটি অসুস্থতা এবং এর চিকিৎসায় নির্দিষ্ট কোনো ওষুধ নেই। তবে এটি ‘খুবই সংক্রামক’ একটি রোগ বলে সতর্ক করেছেন তারা। (ছবি: এনডিটিভি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related posts

Leave a Comment