রাবিতে এভাবেই ভর্তি পরিক্ষার প্রক্সি দিতে এসে গ্রেপ্তার ডাক্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক : নাকে-মাথায় ব্যান্ডেজ পড়ে রোগী সেজে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে এসে এক সমের রায় নামে এক ডাক্তারকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার চতুর্থ শিফটের পরীক্ষা চলাকালে তাকে আটক করা হয়। এঘটনায় মূল পরীক্ষার্থীকেও আটক করে প্রশাসন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ডা. সমেরকে এক বছর এবং মূল পরীক্ষার্থীকে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়ে জেলে পাঠানো হয়েছে।

 

ডা. সমের রায় খুলনা মেডিকেল কলেজের প্রাক্তন ছাত্র এবং খুলনার একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজের প্রভাষক দাবি করেছেন বলে জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর।

 

জনসংযোগ দপ্তর প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রাহাত আমিন নামের একজনের হয়ে তিনি প্রক্সি দিতে এসেছিলেন। তিনি মাথায়, নাকে ও হাতে ব্যান্ডেজ পড়ে পরীক্ষা দিতে এসেছিল। যাতে তাকে চেনা না যায়। তিনি খুলনার একটি মেডিকেল কলেজের প্রভাষক বলে দাবি করেছেন। তাকে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে যার হয়ে প্রক্সি দিতে এসেছিল সেই রাহাত আমিনকে এক মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

 

প্রসঙ্গত, ডা. সমের রায়ের আগে এদিন আরো ৩জন প্রক্সি দিতে এসে আটক হয়েছেন। তাদেরকেও এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের শিক্ষার্থী এখলাসুর রহমান ও লোক প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী জান্নাতুল মেহজাবিন এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী বায়োজিদ খান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related posts

Leave a Comment