রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগ সভাপতিকে জড়িয়ে মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা

রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগ সভাপতিকে জড়িয়ে মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যামোস্তাফিজুর রহমান জীবন রাজশাহীঃ রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রানার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার করছে প্রতিপক্ষরা। সাম্প্রতিক কিছু অনলাইন নিউজ পোর্টালে রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাকিবুল ইসলাম রানার চেহারার মতো দেখতে একটি টিকটক করা ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিহিংসা মুলক ভাবে এ মিথ্যা অপপ্রচার করছে একটি চক্র। এমন মিথ্যা ভিত্তিহীন, বানোয়াট, উদ্দেশ্য মুলক সংবাদের তিব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাকিবুল ইসলাম রানা।

 

বুধবার রাতে গনমাধ্যম কর্মীদের কাছে পাঠানো ইমেলের মাধ্যমে এক প্রতিবাদ লিপিতে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাকিবুল ইসলাম রানা তার বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ ও অপপ্রচারের প্রতিবাদ এবং ব্যখ্যা দিয়েছেন।

 

প্রতিবাদ লিপিতে জানানো হয়, বুধবার কিছু অনলাইন নিউজ পোর্টালে রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রানার নারী কেলেঙ্কারির ভিডিও ভাইরাল শিরোনামে যে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে তা মিথ্যা, ভিত্তিহীন, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য মুলক। এ প্রতিহিংসা মুলক মিথ্যা সংবাদের তিব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানায় তিনি। এছাড়া সংবাদে রানাকে জড়িয়ে যে সকল তথ্য দেয়া হয়েছে তা প্রতিহিংসা মুলক, মিথ্যা ও ভিত্তিহীন।

 

প্রকৃত ঘটনা হচ্ছে, বেশ কিছু দিন থেকে প্রতিপক্ষ একটি চক্র টিকটকের ১৭ সেকেন্ডের গানসহ একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করার জন্য বিভিন্ন ভাবে পায়তারা করছিলো। কিন্তুু পুরো ওই ভিডিওটি কেউ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করার সাহশ পাইনি। নারীর সাথে টিকটকে ভিডিওতে যে যুবক রয়েছে সে রানা না।

 

যুবকটি কিছু টা ছাত্রলীগ নেতা রানার মতো চেহারা বোঝা যায় এমন একটি ছবি সেই ভিডিও থেকে স্কিনসর্ট নিয়ে রানা বলে চালিয়ে দেয়া হয়েছে। বাঘা উপজেলা ছাত্রলীগের ফেক আইডিতে, টিকটক ভিডিওর ওই যুবককে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাকিবুল ইসলাম রানা বলে চালিয়ে দিয়ে প্রতিপক্ষরা পোস্ট করে গত ১১ তারিখ রাতে। এঘটনায় বাঘা উপজেলা ছাত্রলীগ নামের ফেসবুক আইডির বিরুদ্ধে বাঘা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রানা। বাঘা থানা জিডি নং ৪৯৩।

 

পরিকল্পিত ভাবে ছাত্রলীগ নেতা রানার সুনাম ক্ষুন্ন করতে দীর্ঘদিন যাবত একটি চক্র রাজনৈতিক ভাবে ঘায়েল করার অপচেষ্টা করছে। এছাড়া গনমাধ্যম কর্মীদের ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ভুল তথ্য দিয়ে অপপ্রচার করে রাজনৈতিক ভাবে ফাইদা লুটার চেস্টা করছে একটি চক্র।

 

উল্লেখিত মিথ্যা সংবাদে আরো বলা হয়েছে, ছাত্রলীগ নেতা রানা বিকাশে বিভিন্ন ছাত্রলীগ কর্মীর কাছে থেকে চাঁদা হিসাবে টাকা নিয়েছে। ছাত্রলীগ নেতা রানার বিকাশ একাউন্ট নেই। তাহলে কিভাবে সে বিকাশে টাকা নিবে। এছাড়া ২০১৪ সালে রাজশাহী কলেজের হোস্টেল থেকে নাশকতার অভিযোগে শিবিরকর্মী হিসাবে সাকিবুল ইসলাম রানাকে বের করে দেন তৎকালীন কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি রকি কুমার ঘোষ। এছাড়া নগরীর দরগাপাড়ায় সাইকেল চুরির অভিযোগেও আটক হয় রানা বলা হয়েছে সংবাদে। তার বিরুদ্ধে এসব তথ্য মিথ্যা ভিত্তিহীন ও প্রতিহিংসা মুলক। এমন কোন ঘটনার প্রমান নেই। তাছাড়া পুলিশের সিডিএমে রানার বিরুদ্ধে কোন মামলার নথি নেই।

 

সংবাদে আরো বলা হয়, ছাত্রলীগ নেত্রীকে যৌন হয়রানি ও এক ছাত্রলীগ কর্মীকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন করার হুমকি দিয়েছে এসব তথ্য ষড়যন্ত্র মুলক। এমন কোন ঘটনার প্রমান নেই। এমন মিথ্যা সংবাদের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়। মিথ্যা ও প্রতিহিংসা মুলক সংবাদ প্রমান ছাড়া না করার জন্য সাংবাদিকদের প্রতি আহব্বান জানান ছাত্রলীগ নেতা রানা।

 

প্রতিবাদান্তে……সাকিবুল ইসলাম রানা সভাপতি, রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগ।

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related posts

Leave a Comment