নাটোরের নলডাঙ্গায় ৫২ কেজি গাঁজাসহ গ্রেপ্তার-২

প্রথম আলো

বিডি নিউজ২৩/BD News23: নাটোরের নলডাঙ্গা থানা পুলিশের অভিযানে ৫২ কেজি গাঁজাসহ দুই নারী কে গ্রেপ্তার করেছে।

 

সোমবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে নলডাঙ্গা উপজেলার কালিগঞ্জ এলাকা থেকে ধাওয়া করে নাটোর সদর উপজেলার তেলকুপি এলাকার মাদক ব্যবসায়ী সাগর মোল্লার বাড়ি থেকে দুই বস্তা গাঁজাসহ তাদের আটক করা হয়।এসময় মুল হোতা মাদক ব্যবসায়ী সাগর মোল্লা পালিয়ে যায়।

 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, নীলা বেগম (৩০) ও সোনালী বেগম (৪০)।তাদের বাড়ি নাটোর সদর উপজেলার তেলকুপি গ্রামে।তাদের পিতার নাম আমীর আলী ও সুমন প্রমানিক।পলাতক সাগর মোল্লা তেলকুপি গ্রামের মিন্টু মোল্লার ছেলে।

 

নলডাঙ্গা থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়,সোমবার গোপন সংবাদে লালমনিরহাট এলাকা ছোট একটি ট্রাকযোগে মাদক দ্রব্য গাঁজা নিয়ে আসছিল নাটোর সদর উপজেলার মাদক ব্যবসায়ী সাগর মোল্লা।এমন খবর পেয়ে নলডাঙ্গা থানা পুলিশ উপজেলার কালীগঞ্জ এলাকা থেকে মাদক বহন করা ছোট্র ট্রাক কে আটক করার জন্য ধাওয়া করে।পরে মাদক বহন করা ট্রাক নাটোর সদর উপজেলার তেলকুপি গ্রামের সাগর মোল্লার বাড়িতে মাদকসহ ট্রাক রেখে সাগর পালিয়ে যায়।পরে মাদক ব্যবসায়ী সাগরের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে দুই বস্তায় ৫২ কেজি গাঁজা উদ্ধার ও ট্রাকটি জব্দ করা হয়।এর সাথে জরিত বহন করা ট্রাকসহ দুই নারী নীলা ও সোনালীকে আটক করে পুলিশ।এ সময় মুল হোতা মাদক ব্যবসায়ী সাগর মোল্লা পালিয়ে যায়

 

নলডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম বলেন,নলডাঙ্গা থানার অন্তগত কালিগঞ্জ এলাকা দিয়ে মাদকের ছোট ট্রাক আসছে,এমন গোপন খবর পেয়ে সেখান থেকে মাদক বহন ছোট ট্রাক কে আটক করার জন্য ধাওয়া দিলে নাটোর সদর উপজেলার তেলকুপি মাদক ব্যবসায়ী সাগর মোল্লার বাড়িতে ট্রাক রেখে পালিয়ে যায়।পরে সেই বাড়ি থেকে দুই বস্তায় ৫২ কেজি গাঁজা এর সাথে জরিত দুই নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়।এ ঘটনায় নাটোর সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়।মঙ্গলবার তাদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related posts

Leave a Comment