রাজশাহীর বাগমারায় আ’লীগ সম্পাদকের হাতে সভাপতি লাঞ্ছিত

Prothom alo news

বাগমারা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার হামিরকুৎসা ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন একই ইউনিয়নের আ’লীগ সভাপতি সাবেক উপাধ্যক্ষ আয়ুব আলী কে লাঞ্ছিত করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে ।

 

বৃহস্পতিবার (১২মে) সন্ধ্যার আগে আলোকনগর মহিলা স্কুল এন্ড কলেজ চত্বরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। এসময় উভয় পক্ষের সমর্থকদের মাঝে উত্তেজনা দেখা দেয়।

জানা যায়, গত ইউপি নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হন আনোয়ার হোসেন। এ সময় তিনি ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক পদ হতে লিখিত ভাবে পদত্যাগ করলেও পরবর্তীতে তাকে দল হতে বহিষ্কার করা হয়।

 

এদিকে বৃহস্পতিবার বিকেলে বিকেলে সভাপতি কে না জানিয়ে কার্যকরী কমিটির সভা আহ্বান করেন।  পরে ওই মিটিংয়ে উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ মোবাইল ফোনে সভাপতি আয়ুব আলী কে মিটিংয়ে আসতে বলেন। পরে তিনি সেখানে উপস্থিত হলেও মিটিংয়ের সভাপতির দায়িত্ব নেওয়া হয় সারোয়ার আলম নামের একজন সহ-সভাপতি কে। তবে সেখানে সিনিয়র সহ-সভাপতি সরদার আসাদুজ্জামান উপস্থিত থাকলেও তাকেও সভাপতির দায়িত্ব দেয়া হয়নি।

 

সভাপতি আয়ুব আলীর উপস্থিতিতে তাকে সভাপতির পদ হতে বহিষ্কার করার আলোচনা করেন সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন। এসময় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সভাপতি আয়ুব আলী কে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে তাকে মারার জন্য তেড়ে ওঠে আনোয়ার হোসেন। এসময় তার সমর্থক সাখাওয়াত হোসেন, আব্দুল জব্বার প্রামানিক, আসাদুজ্জামান, খোরশেদ আলম, লালু, মুক্তাসহ অন্যান্য সমর্থকরাও আয়ুব আলী কে গালিগালাজ ও মারার জন্য ঘিরে ফেলে।  পরে খবর পেয়ে জেলা মহিলা লীগের নেত্রী গত ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সানোয়ারা খাতুন তার সমর্থকদের নিয়ে এসে সভাপতি আয়ুব আলী কে উদ্ধার করেন।

এ ব্যাপারে নেত্রী সানোয়ারা খাতুন বলেন, নৌকার বিরোধীতাকারীরা ষড়যন্ত্র করে সভাপতির অবগতি ছাড়াই মিটিংয় আহ্বান করা গঠনতন্ত্র পরিপন্থী বলে মনে করি। এছাড়াও আনোয়ার হোসেন একজন বহিষ্কৃত ব্যাক্তি । তিনি কোন ভাবেই সভাপতি ছাড়াই কার্যকরী কমিটির মিটিং আহ্বান করতে পারেন না।

 

এসব ব্যাপারে হামিরকুৎসা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি সাবেক উপাধ্যক্ষ আয়ুব আলী জানান, একজন বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক সভাপতি কে না জানিয়ে কিভাবে কার্যকরী কমিটির মিটিংয় আহ্বান করে। আর সেখানে আমাকে কৌশলে ডেকে নিয়ে লাঞ্ছিত করেছে। তিনি এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলেও জানান সভাপতি আয়ুব আলী। যোগাযোগের চেষ্টা করেও হামিরকুৎসা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন কে পাওয়া যায়নি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related posts

Leave a Comment