২ মণ পেঁয়াজ বিক্রি করেও মাছ কেনা হলো না আ: রহিমের!

BD News23

বিডি নিউজ২৩/BD News23: রাজশাহী জেলার প্রায় প্রতিটি উপজেলায় এবছর পেঁয়াজের ফলন হয়েছে ব্যাপক। পেঁয়াজের ফলন হলেও কৃষকের মুখে হাসি নেই কারণ দামের দিক থেকে একদম নাজেহাল হয়ে পড়েছেন পেঁয়াজ চাষিরা।

 

রাজশাহীর কয়েকটি বড় বড় হাট ঘুরে দেখা গেছে সেখানে সবচেয়ে ভালো বড় সুন্দর পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে সাড়ে ৪৫০ থেকে ৫০০ টাকা মণ। একটু বড় সাইজের ফাটা সেসব বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ২০০ টাকা মণে। রাজশাহীতে সবচেয়ে বেশি পেঁয়াজ আমদানি হয় তাহেরপুর হাট, ঝলমলিয়া হাট, বানেশ্বর হাট, দুর্গাপুর হাট সহ আরও নানান জায়গায়।

 

ঝলমলিয়া হাটে বেশ কয়েকজন পেঁয়াজ চাষের সাথে কথা হয়েছে এর মধ্যে একজন জিউপাড়া ইউনিয়নের আব্দুর রহিম তিনি পেঁয়াজ এনেছিলেন দুই মণ। গুলি ছিল সাইজে বড় ফাটা। কৃষক আব্দুর রহিম দুই মণ পেঁয়াজ বিক্রি করেছেন মাত্র ২৬০ টাকায়। পেঁয়াজ বিক্রি শেষে কাঁচা তরিতরকারি কেনার পর মাছ কেনার আর পয়সা ছিল না তার কাছে খুব কষ্ট আর আবেগঘন ভাবে সে বলছিল ২ মণ পেঁয়াজ বিক্রি করেও মাছ কেনা হলো না।

 

হাটের সাংবাদিক দেখে তারা তাদের নানান রকম অভিযোগ করে বসেছেন কেউ কেউ বলছেন পেঁয়াজের দাম যখন বেশি তখন সাংবাদিকেরা নানান রকম খবর ছাপা অথচ এই মুহূর্তে পেঁয়াজের দাম একেবারেই কম সেগুলো আর তারা ছাপায় না। এমন ভাবে বলতে শোনা গেছে বেশ কিছু মানুষকে।

 

এদিকে সরকারের কাছে কৃষকদের দাবি, খুব দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে পেঁয়াজের ন্যায্যমূল্য যাতে কৃষকরা পায় সে ব্যবস্থা করার জন্য।

Related posts

Leave a Comment