ভাতিজাকে হাত বেঁধে মাটি পুঁতে রাখলেন চাচা: জমা-জমি নিয়ে বিরোধ

BD News23

বিডি নিউজ২৩|BD News23: শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী উপজেলার রামচন্দ্রকুড়া ইউনিয়নের দক্ষিণ তন্তর গ্রামে চাচা ও তার পরিবারের লোকজনরা ভাতিজা কে পেছনে হাত মোরা করে বেঁধে কোমর পর্যন্ত মাটিতে পুঁতে ফেলে।

 

এদিকে এ ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ শনিবার ২৬ শে মার্চ বিকেলের দিকে ওই ভাতিজাকে উদ্ধার করে এবং এই ঘটনার জেরে তিন জনকে আটক করা হয়েছে। আটকরা হলেন, চাচা আলিমদ্দিন, তার স্ত্রী মনিরা বেগম ও ছেলে মুক্তার হোসেন। ভুক্তভোগী ওই ভাতিজার নাম নুর ইসলাম। নুর ইসলাম একই গ্রামের আবু তাহেরের পুত্র।

 

জানা যায় জমিজমার বিরোধ নিয়ে এমন ঘটনার সূত্রপাত হয়। পুলিশ ও এলাকাবাসীরা জানায়, আবু তাহের মারা যাওয়ার পর ছোট ভাই আলিমদ্দিনের সঙ্গে কিছু জমি নিয়ে বিরোধ বাঁধে নূর ইসলামের। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিক শালিস বৈঠকেও সুরাহা হয়নি। পরবর্তীতে শনিবার দুপুরের দিকে আলাদ্দিন তার স্ত্রী ও ছেলে মেলে নুর ইসলামের বাসায় যান এবং সেখানে গর্ত করে তাকে কোমর পর্যন্ত পথে ফেলে এবং পিছনে হাত বেঁধে রাখে।

 

এমত অবস্থায় নুর ইসলাম বাঁচার জন্য অনেক কাকুতি-মিনতি করলেও প্রতিবেশীরা আলাউদ্দিনের ভয় এগিয়ে আসতে পারেনি পরবর্তীতে বিকেল তিনটার দিকে থানা পুলিশ খবর পেয়ে নুর ইসলামকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় এবং হাসপাতালে ভর্তি করেন পাশাপাশি সেখান থেকে তিনজনকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ।

 

নালিতাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ বশিরউদ্দিন বাদল তিনি বলেন, খবর পাওয়ার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স পাঠিয়ে দিই এবং খুব দ্রুত নুর ইসলামকে সেখান থেকে উদ্ধার করে মেডিকেলে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে দেই এরপর অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে বর্তমানে তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Related posts

Leave a Comment