রাজশাহীর পুঠিয়ায় এক যুগেও সংস্কার হয়নি ধোপাপাড়া-মোহনপুর সড়ক

শেখ রেজাউল ইসলাম লিটন, স্টাফ রিপোর্টার, BD NEWS23 বিডি নিউজ২৩ঃ সংস্কারের অভাবে রাজশাহীর পুঠিয়ার ধোপাপাড়া-মোহনপুর সড়কটি বেহাল দশায় পরিনত হয়েছে। এক যুগেও সংস্কার হয়নি সড়কটি। সড়কটি বেশির ভাগ অংশ দেখে বুঝার উপায় নাই যে এটি কার্পেটিং এর সড়ক, না মাটির সড়ক। এছড়াও সড়কটির মোহনপুর মাস্টারপাড়া পর্যন্ত একাধিক জায়গা চলাচলে অনুপযোগী হলেও সংস্কার বা মেরামতের কোন উদ্দ্যোগ নেয়নি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

নিরুপায় হলে এলাকাবাসী মাঝে মধ্যে ব্যক্তিগত উদ্দ্যোগে সংস্কার করলেও তা বেশি দিন টেকসই হয়নি। একটু বৃষ্টিপাত হলে সড়কটি কাঁদাপানিতে পরিনত হয়।

গতকাল সোমবার সরজমিনে গিয়ে দেখাগেছে, গত দেড় যুগ পূর্বে ’পুঠিয়া এলজিইডি অফিসের তত্বাবধায়নে মাটির সড়কটি ডাব্লিবিএমসহ কার্পেটিং এর মাধ্যমে পাকাকরণ করা হয়। সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন শতশত মানুষ মোহনপুর, ফুলবাড়ি, কৈপুকুরিয়া, ভালুকগাছী, ধোপাপাড়া বাজারসহ উপজেলা সদরের যোগাযোগের করে থাকেন।

এছাড়াও উক্ত সড়কটি ভালুকগাছি হয়ে বিড়ালদহ মাজারের সংযোগ সড়ক হিসেবে ব্যবহার করা হয়। উক্ত এলাকার যোগাযোগের একমাত্র সড়ক হওয়ায় সেসময় এলাকাবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে কাঁচা সড়কটি পাকাকরণ করা হয়। মোহনপুর মৌলবীপাড়া আয়নালের দোকান হয়ে মোহনপুর মাস্টারপাড়া কামালের দোকান পর্যন্ত এক কিলোমিটার সড়কটির একাধিক জায়গায় কার্পেটিং ও ডাব্লিবিএম উঠে ভাঙ্গা ও খানান্দনের কারণে শুস্ক মৌসুমে ধুলাবালি ও বর্ষা মৌসুমে কাঁদাপানিতে পরিনত হয়।

এছাড়াও সড়ক সংলগ্ন একধিক জায়গায় ছোট বড় পুকুর মাটিয়াল থাকায় সড়কটির পাশের অংশ ভেঙ্গে গেছে। এসব জায়গায় সড়কটি রক্ষায় রিটার্নিং ওয়াল দেওয়া জুরুরী। মোনহপুর মৌলবীপাড়ার আব্দুল হান্নান মাস্টার জানান, বর্তমানে সড়কটির করুণ দশা। আমরা সরকারি বেসরকারি দপ্তরের প্রায় অর্ধশতাধি শিক্ষক কর্মচারী রয়েছি।

বর্ষা মৌসুমে কাঁদাপানি ভেঙ্গে আমাদের প্রতিদিন যাতায়াত করতে হয়। আমাদের প্রাণের দাবি সড়কটি সংস্কারের। ফুলবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক বেলাল হোসেন শেখ বলেন, প্রায় উনিশ বছর আগে সড়কটি কার্পেটিং দ্বাবার পাকাকরণ করা হয়। এর পর আর সড়কটি সংস্কার করা হয়নি। আমরা বিভিন্ন সময় পুঠিয়া এলজিইডি অফিসে জানাই।

পরে এলজিইডি অফিসের লোকজন এসে লিস্ট করে নিয়ে যায়। অজ্ঞত কারণে সড়কটি সংস্কারের কোন উদ্দ্যোগ নেওয়া হয়না। সড়কটি বর্তমানে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। এলাকাবাসীর চলাচলের সুবধার্থে সড়কটি দ্রুত সংস্কার করে দাবি তাদের। এবিষয়ে পুঠিয়া উপজেলা প্রকৌশলী সাইদুর রহমান সড়কটি সরজমিনে দেখে কার্যকারী পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানান।

বিডি নিউজ২৩ এর পক্ষ থেকে করোনা সাবধানতাঃ এই ভাইরাস থেকে একটু রক্ষা পেতে চাইলে অবশ্যই জনসমাগম এড়িয়ে চলতে হবে। মুখে মাস্ক ভালোভাবে ব্যবহার করার কোনো বিকল্প পথ নেই। নিজে সতর্ক থাকতে হবে অন্যকেও সতর্ক ভাবে রাখতে হবে। যতোটুকু সম্ভব হয় বাহিরে যাওয়া একদম কমিয়ে দিতে হবে। বাহিরে না গেলেই সবচেয়ে ভালো। BD NEWS23 বিডি নিউজ২৩

রাজশাহীর পুঠিয়ায় এক যুগেও সংস্কার হয়নি ধোপাপাড়া-মোহনপুর সড়ক
রাজশাহীর পুঠিয়ায় এক যুগেও সংস্কার হয়নি ধোপাপাড়া-মোহনপুর সড়ক
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *