দেশে ভালো নেই প্রবাসীরা সরকার প্রতি মাসে ভাতা দেবে ১৩,৫০০

BD NEWS23 বিডি নিউজ২৩ঃ করোনা মহামারীর কারণে বাংলাদেশে ফেরত আসা প্রবাসী শ্রমিকরা দারুণভাবে সমস্যার মধ্যে দিন পার করছেন। এমন অনেক প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছেন যে, দেশে এসে আর পরবর্তী সময়ে কর্মস্থলে ফিরে। বাংলাদেশ থেকে করোনা ভাইরাস স্বাভাবিক হবে তারপর আবার কর্মস্থলে বিদেশে ফিরে যাবেন এমন আশা নিয়ে থাকতে থাকতে প্রবাসীদের হাতে যতটুকু টাকা পয়সা ছিল বসে থেকে খেয়ে সবগুলো ফুরিয়ে গেছে প্রায় সবগুলো প্রবাসীর পরিস্থিতি এমনটা।

এরই মধ্যেই কিছু প্রবাসী শ্রমিক রয়েছেন তারা বিদেশে যাবেন না বলে ইতোমধ্যে কেউ ভ্যান, অটো বা রিক্সা নানান ধরনের কাজে নেমে পড়েছেন।

দেশে আটকে পড়া প্রবাসী শ্রমিকদের নিয়ে নানান পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। সরকার ইতোমধ্যেই প্রবাসী শ্রমিকদের জীবন উন্নয়নের জন্য ৪২৭ কোটি ৩০ লাখ টাকা বরাদ্দ করেছে। এই পুরো টাকা প্রবাসী শ্রমিকদের কল্যাণে ব্যয় করা হবে। ২ লক্ষ প্রবাসী শ্রমিকদের জন্য কাজ করবে সরকার যা পরবর্তীতে আরো বাড়তে পারে সম্ভাবনা রয়েছে।

ফেরত আসা ২ লাখ প্রবাসী সম্মানী পাবেন। করোনায় বিদেশ থেকে ফেরত আসা দুই লাখ প্রবাসী বাংলাদেশিকে ১৩ হাজার ৫০০ টাকা করে দেবে সরকার। পাশাপাশি তাঁদের চাকরির ব্যবস্থা করতে দেওয়া হবে প্রশিক্ষণ। প্রশিক্ষণ চলাকালেই এসব কর্মী এ সম্মানী পাবেন। এ জন্য ৪২৭ কোটি টাকার একটি প্রকল্প আজ বুধবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির সভায় (একনেক) অনুমোদন করা হয়েছে।

প্রকল্প অনুমোদনের আগে আজকের একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘প্রবাসীরা দেশে অর্থ পাঠান। করোনার কারণে তাঁদের অনেকে চাকরি হারিয়ে দেশে ফিরে এসেছেন। এত দিন তাঁরা আমাদের দিয়েছেন। এবার আমরা তাঁদের দেব। যাঁরা চাকরি হারিয়ে দেশে ফিরে এসেছেন, তাঁদের শোভন চাকরির ব্যবস্থা করা হবে।

সভা শেষে সাংবাদিকদের কাছে সভার সিদ্ধান্ত অবহিত করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নবনিযুক্ত পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শামসুল আলম।

এদিকে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রত্যাগত অভিবাসী কর্মীদের অনানুষ্ঠানিক খাতে কর্মসংস্থান সৃষ্টির প্রকল্পটির সিংহভাগ অর্থ, অর্থাৎ ৪২৫ কোটি টাকা ঋণ হিসেবে দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। গত ২৩ মার্চ বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে এ–সংক্রান্ত চুক্তি সই হয়েছে। প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড প্রকল্পটি ২০২৩ সালের ডিসেম্বর নাগাদ বাস্তবায়ন করবে।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) এবং হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন থেকে পাওয়া তথ্যমতে, গত বছর জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত এক বছরে মোট ৪ লাখ ৮ হাজার ৪০৮ জন প্রবাসী বাংলাদেশি দেশে ফিরে এসেছেন। তাঁদের মধ্য থেকে দুই লাখ কর্মীকে বাছাই করা হবে তাঁদের আগ্রহ, পারিবারিক অবস্থা, আর্থিক অবস্থা ও প্রয়োজনীয়তার নিরিখে।

কর্মী বাছাইয়ে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হবে। এর বাইরে আরও ২৩ হাজার ৫০০ কর্মীকে বাছাই করে তাঁদের সরকারের বিভিন্ন সংস্থা থেকে সনদ দেওয়া হবে।

প্রথম দফায় দুই লাখ কর্মীকে ৩২ জেলা থেকে বাছাই করা হবে। অভিবাসী–অধ্যুষিত এলাকা হিসেবে বিবেচিত জেলাগুলো হলো ঢাকা, টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, নরসিংদী, মুন্সিগঞ্জ, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, ময়মনসিংহ, জামালপুর, রংপুর, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, পাবনা, বগুড়া, নওগাঁ, রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ, বরিশাল, পটুয়াখালী, কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনা, ফেনী, নোয়াখালী, চাঁদপুর, চট্টগ্রাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কক্সবাজার, রাঙামাটি, কুমিল্লা, সিলেট ও সুনামগঞ্জ।

বিডি নিউজ২৩ এর পক্ষ থেকে করোনা সাবধানতাঃ এই ভাইরাস থেকে একটু রক্ষা পেতে চাইলে অবশ্যই জনসমাগম এড়িয়ে চলতে হবে। মুখে মাস্ক ভালোভাবে ব্যবহার করার কোনো বিকল্প পথ নেই। নিজে সতর্ক থাকতে হবে অন্যকেও সতর্ক ভাবে রাখতে হবে। যতোটুকু সম্ভব হয় বাহিরে যাওয়া একদম কমিয়ে দিতে হবে। বাহিরে না গেলেই সবচেয়ে ভালো। BD NEWS23 বিডি নিউজ২৩

দেশে ভালো নেই প্রবাসীরা সরকার প্রতি মাসে ভাতা দেবে ১৩,৫০০
দেশে ভালো নেই প্রবাসীরা সরকার প্রতি মাসে ভাতা দেবে ১৩,৫০০
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *