প্রথম আলো

শ্বশুর-শাশুড়ির সেবা করলে তাঁতের শাড়ি সহ নানান রকম পুরস্কার দিয়ে বাড়াচ্ছেন, ওসি মীর মোশারফ হোসেন। দেখুন বিস্তারিত…More

মোহাম্মদ ইমাম হোসাইন, বিডিনিউজ২৩ঃ বয়স বাড়লে অনেক ভাব আমার কষ্টের সীমা থাকে না মাঝে মাঝে দেখা যায় নিজের বাড়িঘর ছেড়ে যেতে হয় বৃদ্ধাশ্রম। আবার অনেকেই বাবা মাকে পরম আদরে লালন পালন করেন। বৃদ্ধকালে যাতে করে বাবা-মায়ের কোন কষ্ট না হয় আর কোনো বাবা-মাকে যেন বৃদ্ধাশ্রমে যেতে না হয়, সেজন্য উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন টাঙ্গাইল সদর থানার ওসি মীর মশাররফ হোসেন।।

যেসব ছেলের বউ এবং ছেলে তার নিজ পিতা মাতাকে দেখো ভালো কাজ করবেন সেবা যত্ন করবেন সে সব ছেলে এবং ছেলের বউকে পুরস্কারের ঘোষণা করেছেন টাঙ্গাইল সদর থানার ওসি মীর মশাররফ হোসেন। ইতোমধ্যেই পুলিশের এই কর্মকর্তা কর্মকাণ্ডের ওপর সন্তুষ্ট প্রকাশ করেছেন টাঙ্গাইল সদর থানার মানুষেরা।

টাঙ্গাইল সদর থানার ওসি মীর মশাররফ হোসেন নিজে হেঁটে গিয়ে এমন বউদের কে উপহার হাতে তুলে দিয়ে আসছেন। এবং ছেলে এবং ছেলের বউ দের কে বলছেন শ্বশুর-শাশুড়ী দের কে সেবা করার জন্য।

টাঙ্গাইল সদর থানার ওসি মীর মোশারফ হোসেনের কাছে কিভাবে এমন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে, এমন প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, বাড়ির পুরুষ মানুষ এরা রোজগারের জন্য সবসময় বাহিরে থাকে আর বাসায় ছেলের বউয়ের কাছে থাকতে হয় শ্বশুর-শাশুড়িকে তাই ছেলে বাসায় না থাকার কারণে বাবা-মাকে সেবা করেন না অনেকেই তাই যাতে করে শ্বশুর-শাশুড়ী দের কে সেবা করেন ছেলের বউ এরা সেজন্যই এমন উদ্যোগ নেয়া এবং প্রতিটি বউদের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধি করা এবং এটা বোঝানো যে একটা সময় সবাই বৃদ্ধ হবে আর বৃদ্ধ বয়সে সবারই সেবাযত্নের দরকার তাই শ্বশুর-শাশুড়ী দের কে অবহেলা না করে তাদেরকে যেন সেবা যত্ন করা হয় সে কারণে এমন উদ্যোগ গ্রহণ করা।

সেবা যত্ন নেয়া ঐসকল বউদের কে উপহার হিসেবে দেওয়া হচ্ছে তাঁতের শাড়ি, মিষ্টি, আর ক্রেস্ট। টাঙ্গাইল সদর থানার ওসি মীর মশাররফ হোসেনের ওপর বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষদের ব্যাপক আস্থা আর ভালোবাসা। অনেকেই বলছেন এমন উদ্যোগকে অবশ্যই সাধুবাদ জানায় আর বাংলাদেশের প্রতিটি থানার পুলিশ এরা যদি এমন উদ্যোগ গ্রহণ করে তাহলে বাংলাদেশ হয়তো আর কাউকে বৃদ্ধাশ্রমে যেতে হবে না। বিডি নিউজ২৩ঃ

শ্বশুর-শাশুড়ির সেবা করলেই শাড়িসহ নানান পুরস্কার দিচ্ছেন ওসি!

প্রথম আলো
শ্বশুর-শাশুড়ির সেবা করলেই শাড়িসহ নানান পুরস্কার দিচ্ছেন ওসি!
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *