(বিডি নিউজ২৩:) সম্প্রতি প্রকাশ্যে ধূমপান করা নিয়ে এক তরুণীকে হেনস্তা করা হয়েছে জনসমক্ষে। এ ঘটনার একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি নিয়ে নানাবিধ আলোচনা-সমালোচনা করছেন অনেকেই। এই ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তির পরিচয় জানা গেছে। শহিদ হোসেন বারেক নামের ঐ ব্যক্তি গণমাধ্যমকে তার পক্ষ থেকে একটি ব্যাখাও দিয়েছেন। ৬ ডিসেম্বরের ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে শহিদ হোসেন বারেক একটি গণমাধ্যমকে বলেন, একজন মেয়ে মানুষ প্রকাশ্যে সিগারেট খাচ্ছিলো।

এটা খারাপ দেখা যাচ্ছিলো। পরিবেশ নষ্ট হচ্ছিলো। পাড়ার মেয়েরা খারাপ হয়ে যেতে পারে। তাই ভালোভাবে নিষেধ করেছি। উঠে যেতে বলেছি। পুরুষদের সিগারেট খেতে নিষেধ করেন না কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‌‘ছেলে-মেয়ের মধ্যে পার্থক্য আছে। ছেলেদের নিষেধ করা যায় না। কিন্তু মেয়েরা প্রকাশ্যে সিগারেট খেলে খারাপ লাগে। নারী-পুরুষের সমান অধিকারে বিশ্বাস করেন কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, কর্মক্ষেত্রে সমান অধিকার।

কিন্তু অন্য ক্ষেত্রে না। আপনার কী মনে হয়, আমি খারাপ কিছু করেছি? একজন সাংবাদিক হয়ে আমাকে এ প্রশ্ন করেন কিভাবে? প্রশ্ন করেই নামাজে যাবেন বলে ফোন কেটে দেন বারেক। নামাজের পর অসংখ্যবার ফোন করলেও বারেক আর ফোন ধরেননি।
পুলিশও এই ব্যক্তির খোঁজ করছেন বলে জানিয়েছে নগর পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক। তিনি বলেন, ঘটনার সঙ্গে কারা জড়িত তা জানতে পুলিশ খোঁজ নিচ্ছে। উল্লেখ্য, গত রোববার (৬ ডিসেম্বর) থেকে রাজশাহী শহরের ওই ভিডিওটি ভাইরাল হয়।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, কোনো এক উদ্যানে বসে আড্ডা দিচ্ছে আর ধূমপান করছে দুইজন তরুণ-তরুণী। তাদের লক্ষ্য করে তেড়ে যায় শার্ট-প্যান্ট পরা এক ব্যক্তি। তার পিছু নেয় আরও কয়েকজন। শুরু থেকেই মোবাইল ক্যামেরায় ভিডিও ধারণ করা হচ্ছিল। দ্রুতই এ ঘটনা দেখতে আরও অনেক মানুষ জড়ো হয়ে যায়। (সুত্র: সময় অনলাইন) (বিডি নিউজ২৩)

প্রকাশ্যে ধূমপান করে নারীকে বকাবকির কারণ জানালেন বারেক
প্রকাশ্যে তরুনীর ধূমপান করার করার পর বকাবকির কারণ জানালেন বারেক
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *