প্রথম আলো

মোহাম্মদ ইমাম হোসাইন, চিফ এডিটরঃ (বিডি নিউজ২৪ঃ) অনেকেই আছেন কুরআন পড়তে জানেন না। আবার অনেকেই রয়েছেন যারা কিছুটা পড়তে পারলেও, তেমন শুদ্ধভাবে পড়তে পারেন না। ঠিক তাদেরকে আলোকিত করতে, শিক্ষক আব্দুল হাকিম প্রতিদিন ট্রেনে করে, রাজশাহী থেকে জয়পুরহাট যেয়ে, বিনা পারিশ্রমিকে কোরআনের বাণী ছড়িয়ে দিচ্ছেন প্রতিদিন। বিডিনিউজ২৩//

 

শিক্ষক আব্দুল হাকিমের রাজশাহী থেকে জয়পুরহাট যেতে সময় লাগে প্রায় ৮ ঘন্টা। দিনের কর্মব্যস্ততা শেষে রাতের বেলা নানা বয়সের মানুষেরা যাচ্ছেন আক্কেলপুর মুজিবুর রহমান সরকারি কলেজ মসজিদে। উদ্দেশ্য শিক্ষক আবদুল হাকিমের কাছ থেকে সহিহ্ শুদ্ধভাবে কুরআন শিক্ষা করা। বিডিনিউজ২৩//

 

জানা যায় আব্দুল হাকিমের বাড়ি বগুড়ার দুপচাঁচিয়া বরিয়া গ্রামে তার বাড়ি। আব্দুল হাকিম ২০০২ সালের বগুড়ার জামিয়া মাদ্রাসা থেকে দাওরা হাদিসের পড়াশোনা শেষ করে কিছুটা সময় জয়পুরহাটে চাকরি করার সুযোগ পান। এরপর শিক্ষক আব্দুল হাকিম রাজশাহীর একটি মাদ্রাসায় চাকরি পেলেও জয়পুরহাটের টান যেন মন থেকে কিছুতেই যাচ্ছিল না। বিডিনিউজ২৩//

 

তাই নিজের চাকরি ও কাজ শেষে রওনা দেন প্রতিদিন জয়পুরহাটের উদ্দেশ্যে। সেখানে তার বিভিন্ন বয়সের ছাত্রদের শিক্ষা দানের পর আবার গভীর রাতে ফিরে আসেন রাজশাহীতে। বহু বছর ধরে এভাবেই চলছে শিক্ষক আবদুল হাকিমের কোরআন শিক্ষার ক্লাস। আরো জানা যায় আব্দুল হাকিমের যেমন পড়ানোর প্রতি টান রয়েছে তেমনি শিক্ষা গ্রহণ করার বা পবিত্র কোরান শরীফ সহি শুদ্ধভাবে শিখে নেওয়ার জন্য ছুটে আসেন তার বিভিন্ন বয়সের ছাত্ররা। বিডিনিউজ২৩//

 

শিক্ষক আব্দুল হাকিম তিনি বলছেন, রাজশাহী থেকে ট্রেন যোগে প্রতিদিনই আমি জয়পুরহাটে পবিত্র কুরআন শিক্ষা দেওয়ার জন্য যাতায়াত করি এর জন্য আমার অনেক কষ্ট হয় তাতে আমার আফসোস নেই। আমার একমাত্র উদ্দেশ্য সবাই যেন সহি শুদ্ধভাবে পবিত্র কুরআন শরীফ পড়তে পারে, নামাজ পড়তে পারে, এবং সৎভাবে জীবনযাপন করতে পারে। সর্বোপরি আল্লাহকে রাজি-খুশি করানোর উদ্দেশ্যে আমার এই কষ্ট করা। বিডিনিউজ২৩//

 

এছাড়াও জয়পুরহাটের ওই সরকারি কলেজ মসজিদের বিভিন্ন বয়সের ছাত্রদের মধ্যে অনেকেই বলছেন, শিক্ষক আব্দুল হাকিম যা আমাদের জন্য করছেন এটা বর্তমান পৃথিবীতে খুব কম মানুষই করে থাকে। এখানে আমাদেরকে পবিত্র কুরআন শরীফ শিক্ষা দিয়ে তিনি খুব ভালো একটি কাজ করছেন। আমরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে আমাদের সবার প্রিয় স্যার আব্দুল হাকিম তার জন্য আল্লাহর কাছে প্রাণভরে দোয়া করি আমরা কোন টাকা পয়সা ছাড়াই তার কাছ থেকে সহি শুদ্ধভাবে কোরআন শরীফ শিখতে পারছি। বিডিনিউজ২৩//

 

এছাড়াও এলাকাবাসীরা বলছেন, শিক্ষক আবদুল হাকিমের এমন উদ্যোগ অবশ্যই প্রশংসনীয়। তিনি প্রতিদিন কষ্ট করে এসে তাঁর ছাত্রদের পবিত্র কুরআন শরীফ শিক্ষা দিয়ে আবার গভীর রাতে রাজশাহীতে ফিরে যান এটা অবশ্যই অনেক কষ্টের কাজ তাছাড়া এই শীতের সময় এই কাজ করা অনেক মহৎ ব্যাপার।শীতের সময় আমরা মূলত বাড়ির বাহিরে যেতে চাইনা অথচ শিক্ষক আব্দুল হাকিম রাজশাহী থেকে জয়পুরহাটে এসে যে শিক্ষা দিয়ে যাচ্ছেন তা অবশ্যই শিক্ষণীয়, পাশাপাশি প্রশংসনীয়। বিডিনিউজ২৩//

প্রথম আলো
প্রতিদিন রাজশাহী থেকে জয়পুরহাটে যেয়ে কোরআন শিক্ষা দিচ্ছেন ফ্রী আব্দুল হাকিম!
শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *